খুশকি দূর করার উপায়

চুলের খুশকি দূর করার উপায় (প্রাকৃতিক বা ঘরোয়া পদ্ধতি)

চুলের সমস্যা

আমরা সকলেই কমবেশি খুশকির সমস্যায় ভুগছি। এ খুশকি হওয়ার মূল কারণ হল রুক্ষ আবহাওয়া ও ধুলোবালি যা মাথার ত্বকে খুশকির উপদ্রব বাড়ায়। চুলের খুশকি মানেই চুল পড়ার প্রধান কারণ। আপনি চুলের খুশকি দূর করার উপায় প্রাকৃতিক বা ঘরোয়া পদ্ধতি ব্যবহারের মাধ্যমে দ্রুত এ সমস্যা সমাধান করা একেবারেই সম্ভব। তাই প্রত্যেকের উচিত চুলের খুশকি দূর করার উপায় সর্ম্পকে সমক্য জ্ঞান থাকা এবং সম্ভব চুলের যত্নে বদ্ধপরিকর হওয়া উচিত। চুল মানেই সৌন্দর্যের প্রতীক।

চুলের খুশকি দূর করার উপায় ঘরোয়া টিপসঃ

চুলের খুশকি দূর করার উপায় হিসেবে ঘরোয়া বা প্রাকৃতিক টিপস ব্যবহারে আপনার খুশকি চিরতরে নির্মূল করা সম্ভব। তবে এটা দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহারের ফলে।

 তেল ও লেবুঃ

নারিকেল তেল ও লেবুর রস ব্যবহারের মাধ্যমে চুলের খুশকির দূর করা সম্ভবঃ

১।। এজন্য ৩ চা-চামচ নারিকেল তেল এবং ২ চা-চামচ লেবুর রস একটি পাত্রে নিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

২।। এ মিশ্রণটি আপনার চুলের গোঁড়ায়, মাথার তালুর ত্বকে হাতের আঙ্গুলের মাথা দিয়ে ভালোভালে ঘষে ম্যাসাজ করুন।

৩।। আপনি এ মিশ্রণটি ২০ থেকে ২৫ মিনিট রাখার পর নরমাল পানি দিয়ে ধুঁয়ে ফেলুন।

৫।।  মিশ্রণটি সপ্তাহে ২/৩ বার ব্যবহার করুন। এর অধিক নয়।

মেথিঃ

খুশকির সমস্যা দূর করার জন্য যথেষ্ট কার্যকারী প্রাকৃতিক উপাদান হল শতগুণ সম্পন্ন মেথিঃ

১।। এ মেথি খুশকির সমস্যায় ব্যবহার করার জন্য প্রথমে একটি পাত্রে পরিমাণমত মেথি নিয়ে পানি দিয়ে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন।

২।। সকালে ভিজানো মেথি ছেঁকে নিন এবং এ ছেঁকে ফেলানো পানি ফেলবেন না।

৩।। এবার মেথি মিহিন করে বেটে নিয়ে চুলের গোঁড়ায় ভালোভাবে লাগিয়ে নিন এবং ৩ থেকে ৪ ঘন্টা পর চুল ভালো করে ধুঁয়ে ফেলুন।

৪।। চুল ধোঁয়া পরে মেথি ভিজানো রেখে দেয়া পানি দিয়ে আবার চুল ধুঁয়ে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে ২ বার ব্যবহার করুন। এর ফলে অনেক বেশি খুশকির সমস্যা থাকলেও তার উপদ্রবও লাঘব হবে।

সাদা ভিনেগারঃ

১।। আপনার মাথার চুলের ত্বকে সাদা ভিনেগার তেলের মতো করে একটু বেশি লাগিয়ে নিন।

২।। ভিনেগার লাগানো পুরো মাথায় একটি তোয়াল দিয়ে পেঁচিয়ে সারারাত রাখুন।

৩।। পরের দিন সকালে উঠে শ্যাম্পু করে চুল ধুঁয়ে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে ২ বার ব্যবহার করলে খুশকি দ্রুত চলে যাবে।

বেকিং সোডাঃ

১।। আপনার মাথা পানি দিয়ে ভিজিয়ে নিয়ে বেকিং সোডা অর্থাৎ খাবার সোডা আঙুলের মাথায় নিয়ে সম্পূর্ন মাথার ত্বকে ভালো করে লাগিয়ে নিন।

২।। এভাবে ১০ মিনিট রাখার পর পানি দিয়ে ধুঁয়ে ফেলুন কিন্তু শ্যাম্পু দিয়ে নয়। আপনি পরের দিন শ্যাম্পু করে চুল ধুঁয়ে ফেলুন।

৩।। এভাবে সপ্তাহে ১ বার ব্যবহার করলে আপনি নিজেই এর ভালো ফলাফল দেখতে পাবেন।

খুশকির যত্নে ঔষধের ব্যবহারঃ

অ্যাসপিরিন ট্যাবলেটঃ

১।। আপনি ৩ টি অ্যাসপিরিন ট্যাবলেট গুঁড়ো করে নিয়ে ১ চা-চামচ ভিনেগারের সাথে এ ৩ টি ট্যাবলেটের গুঁড়ো ভালো করে মিশিয়ে নিন।

২।। এ মিশ্রণ আঙুলের ডগায় নিয়ে মাথার ত্বকে ঘষে ঘষে লাগিয়ে নিন।

৩।। এ মিশ্রণ লাগানোর দেড় ঘন্টা পর পানি দিয়ে ধুঁয়ে ফেলুন। এ পদ্ধতিটি ব্যবহারের মাধ্যমে দ্রুত খুশকির সমস্যা চলে যাবে।

৪।। তবে দ্রুত খুশকির সমস্যা দূর করা সবচেয়ে ভালো পদ্ধতি হলে ভিনেগারের সাথে অ্যাসপিরিন ট্যাবলেটের ব্যবহার।

উপরিউক্ত চুলের খুশকির সমস্যা দূর করার জন্য ঘরোয়া টিপস্‌ সমূহ আপনার খুশকির সমস্যা দূর করতে কার্যকারী হিসাবে কাজ করে বলে এটাই আমাদের দৃঢ় প্রত্যয়।

চুলের সমস্যা সম্পর্কে আরো জানতেঃ

এখানে ক্লিক করুন

“ধন্যবাদ”

==বাংলা হাউ ডট কম==