বাংলা সন্ধি বিচ্ছেদ (নিপাতনে সিদ্ধ সন্ধি)

সন্ধি বিচ্ছেদ (নিপাতনে সিদ্ধ সন্ধি)

সন্ধি বিচ্ছেদ উচ্চারণের সুবিধার মাধ্যমে ধ্বনিগত মাধুর্যতা বৃদ্ধি করে। বাংলা সন্ধি বিচ্ছেদ সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জানার জন্য অধ্যায়নের বিকল্প নেই। আসুন আমরা এখন নিম্নোক্ত সন্ধি বিচ্ছেদের নিপাতনে সিদ্ধ সন্ধি বিষয়ক তথ্য সমূহ অধ্যায়ন করি।

গুরুত্বপূর্ণ নিপাতনে সিদ্ধ সন্ধি সমূহঃ

নিপাতনে সিদ্ধ সন্ধিঃ

যেসব ক্ষেত্রে সন্ধি নিয়মানুসারে হয় না তাকে নিপাতনে সিদ্ধ সন্ধি বলে।

**নিপাতনে স্বরসন্ধিঃ**

অন্য+অন্য= অন্যান্য।

অক্ষ+ঊহিনী= অক্ষৌহিণী।

কুল+অটা= কুলটা।

গো+অক্ষ= গবাক্ষ।

গো+ইন্দ্র= গবেন্দ্র।

গো+ঈশ্বর= গবেশ্বর।

প্র+ঊঢ়= পৌঢ়।

মার্ত+অণ্ড= মার্তণ্ড।

রক্ত+ওষ্ঠ= রক্তোষ্ঠ।

শার+অঙ্গ= শারঙ্গ।

শুদ্ধ+ওদন= শুদ্ধোধন।

সীমন্‌+অত= সীমান্ত।

স্ব+ঈর= স্বৈর।

**নিপাতনে ব্যঞ্জনসন্ধিঃ**

আশ্চর্য= আ+চর্য।

গোষ্পদ= গো+পদ।

পরস্পর= পর্‌+পর।

বৃহস্পতি= বৃহৎ+পতি।

বনস্পতি= বন্‌+পতি।

ষোড়শ= ষট্‌+দশ।

পতঞ্জলি= পতৎ+অঞ্জলি।

মনীষা= মনস্‌+ঈষা।

তস্কর= তৎ+কর।

একাদশ= এক+দশ।

দ্যুলোক= দিব্‌+লোক।

পরিষ্কার= পরি+কার।

পরিষ্কৃত= পরি+কৃত।

উত্থান= উৎ+স্থান।

উত্থাপন= উৎ+স্থাপন।

সংস্কার= সম+কার।

সংস্কৃতি= সম+কৃতি।

**নিপাতনে বিসর্গসন্ধিঃ**

অহঃ+অহ= অহরহ।

অহঃ+নিশ= অহর্নিশ।

আঃ+পদ= আস্পদ।

প্রাতঃ+কাল= প্রাতঃকাল।

বাচঃ+পতি= বাচস্পতি।

ভাঃ+কর= ভাস্কর।

মনঃ+কষ্ট= মনঃকষ্ট।

শিরঃ+পীড়া= শিরঃপীড়া।

হরিঃ+চন্দ্র= হরিশ্চন্দ্র।

-: বিস্তারিত জানতে দেখুন :-

গুরুত্বপূর্ণ স্বরসন্ধি দেখতেঃ

*** এখানে ক্লিক করুন ***

গুরুত্বপূর্ণ ব্যঞ্জনসন্ধি দেখতেঃ

*** এখানে ক্লিক করুন ***

গুরুত্বপূর্ণ বিসর্গসন্ধি দেখতেঃ

*** এখানে ক্লিক করুন ***

“ধন্যবাদ”

Be the first to comment

Leave a Reply