বাংলা সন্ধি বিচ্ছেদ (স্বরসন্ধি)

সন্ধি বিচ্ছেদ (স্বরসন্ধি)

সন্ধি বিচ্ছেদ উচ্চারণের সুবিধার মাধ্যমে ধ্বনিগত মাধুর্যতা বৃদ্ধি করে। বাংলা সন্ধি বিচ্ছেদ সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জানার জন্য অধ্যায়নের বিকল্প নেই। আসুন আমরা এখন নিম্নোক্ত সন্ধি এবং এর স্বরসন্ধি বিষয়ক তথ্য সমূহ অধ্যায়ন করি।

সন্ধি

সংজ্ঞাঃ পরস্পর সন্নিহিত দুটি ধ্বনি পরিবর্তিত হয়ে এক ধ্বনিতে রূপান্তরিত হওয়াকে সন্ধি বলে।

অথবা, পরস্পর কাছাকাছি ধ্বনি বা বর্ণের মিলনকে সন্ধি বলে।

অথবা, পাশাপাশি দুটি বর্ণ বা ধ্বনির মিলনকে সন্ধি বলে।

উদ্দেশ্যঃ

***সন্ধির উদ্দেশ্য হলো দুটি। যথা-

(ক) উচ্চারণের সহজপ্রবণতা/ সুবিধা এবং

(খ) ধ্বনিগত মাধুর্য সম্পাদন/ সৃষ্টি।

প্রকারভেদঃ

*** বাংলা ব্যাকরণ অনুসারে সন্ধি দুই প্রকার। যথা-

(ক) স্বরসন্ধি এবং

(খ) ব্যঞ্জনসন্ধি।

*** তৎসম বা সংস্কৃত ব্যাকরণ অনুসারে সন্ধি তিন প্রকার। যথা-

(ক) স্বরসন্ধি

(খ) ব্যঞ্জনসন্ধি এবং

(গ) বিসর্গ সন্ধি।

**বাংলা যে পদের সাথে সন্ধি হয় না= অব্যয় পদের সাথে।

গুরুত্বপূর্ণ স্বরসন্ধি সমূহঃ

স্বরসন্ধিঃ

স্বরধ্বনির সাথে স্বরধ্বনি মিলে যে সন্ধি হয় তাকে স্বরসন্ধি বলে।

**স্বরসন্ধি+স্বরসন্ধি= স্বরসন্ধি**

অতীন্দ্রিয়= অতি+ইন্দ্রিয়।

অত্যধিক= অতি+অধিক।

অতীত= অতি+ইত।

অত্যুক্তি= অতি+উক্তি।

অত্যাচার= অতি+আচার।

অত্যন্ত= অতি+অন্ত।

অতীষ্ট= অতি+ইষ্ট।

অতীব= অতি+ইব।

অধীশ্বর= অধি+ঈশ্বর।

অর্ধেক= অর্ধ+এক।

অনেক= অন+এক।

অন্বেষণ= অনু+এষণ।

অন্যান্য= অন্য+অন্য।

অপরাহ্ন= অপর+অহ্ন।

অনূদিত= অনু+উদিত

অধমর্ণ= অধম+ঋণ।

অভীপ্সা= অভি+ঈপ্সা।

আদ্যন্ত= আদি+অন্ত।

আশাতীত= আশা+অতীত।

ইত্যাদি= ইতি+আদি।

উমেশ= উমা+ঈশ।

উপর্যুক্ত= উপরি+উক্ত।

উত্তমর্ণ= উত্তম+ঋণ।

উপর্যুপরি= উপরি+উপরি।

একত্রিত= একত্র+ইত।

কথামৃত= কথা+অমৃত।

কটূক্তি= কুট+উক্তি।

কথোপকথন= কথা+উপকথন।

কুশাসন= কুশ+আসন।

কুলটা= কুল+অটা।

গণেশ= গণ+ঈশ।

গজেন্দ্র= গজ+ইন্দ্র।

গায়ক= গৈ+অক।

গবাদি= গো+আদি।

গবাক্ষ= গো+অক্ষ।

গিরীশ= গিরি+ঈশ।

গবাস্থি= গো+অস্থি।

গবেষণা= গো+এষণা।

ঘড়িয়াল= ঘড়ি+ইয়াল।

ঘোড়ার= ঘোড়া+এর।

চয়ন= চে+অন।

চাবুক= চৌ+উক।

চিত্তৌদার্য= চিত্ত+ঔদার্য।

চরাচর= চল+অচল।

চিরাচরিত= চির+আচরিত।

চলাচল= চল+অচল।

ছাত্রাবাস= ছাত্র+আবাস।

জলাশয়= জল+আশয়।

জলোচ্ছ্বাস= জল+উচ্ছ্বাস।

জনৈক= জন+এক।

জলৌকা= জল+ওকা।

ডালের= ডাল+এর।

ঢাকেশ্বরী= ঢাকা+ঈশ্বরী।

তৃষ্ণার্ত= তৃষ্ণা+ঋত।

তথাপি= তথা+অপি।

তিলেক= তিল+এক।

ত্বরান্বিত= ত্বরা+অন্বিত।

দুর্গোৎসব= দুর্গা+উৎসব।

দেবেন্দ্র= দেব+ইন্দ্র।

দয়ার্দ্র= দয়া+আর্দ্র।

দেবর্ষি= দেব+ঋষি।

ধনৈশ্বর্য= ধন+ঐশ্বর্য।

ধর্মাধম= ধর্ম+অধম।

নবান্ন= নব+অন্ন।

নবোঢ়া= নব+ঊঢ়া।

নরেশ= নর+ঈশ।

নরেন্দ্র= নর+ইন্দ্র।

নীলোৎপল= নীল+উৎপল।

নায়ক= নৈ+অক।

নরাধম= নর+অধম।

নরোত্তম= নর+উত্তম।

নাবিক= নৌ+ইক।

নয়ন= নে+অন।

নদ্যম্বু= নদী+অম্বু।

পরমাধ্য= পরম+আরাধ্য।

পবিত্র= পো+ইত্র।

পরোপকার= পর+উপকার।

পর্যালোচনা= পরি+আলোচনা।

প্রতীতি= প্রতি+ইতি।

পবন= পো+অন।

প্রত্যুক্তি= প্রতি+উক্তি।

প্রত্যেক= প্রতি+এক।

প্রত্যুপকার= প্রতি+উপকার।

প্রশ্নোত্তর= প্রশ্ন+উত্তর।

পরীক্ষা= পরি+ঈক্ষা।

প্রত্যাশা= প্রতি+আশা।

পাবক= পৌ+অক।

পিত্রালয়= পিতৃ+আলয়।

প্রতীক্ষা= প্রতি+ঈক্ষা।

প্রত্যহ= প্রতি+অহ।

পদ্ধতি= পদ+হতি।

প্রত্যুত্তর= প্রতি+উত্তর।

পশ্বাধম= পশু+অধম।

ফলোদয়= ফল+উদয়।

বনৌষধি= বন+ঔষধি।

বধূক্তি= বধূ+উক্তি।

বয়ন= বে+অন।

বিদ্যালয়= বিদ্যা+আলয়।

বহ্ন্যুৎসব= বহ্নি+উৎসব।

বড়াই= বড়+আই।

বন্যার্ত= বন্যা+ঋত।

ভবন= ভো+অন।

ভিক্ষান্ন= ভিক্ষা+অন্ন।

ভবেশ= ভব+ঈশ।

ভয়ার্ত= ভয়+ঋত।

ভয়= ভী+অ।

মহৌষধ= মহা+ঔষধ।

মহৈশ্বর্য= মহা+ঐশ্বর্য।

মহর্ষি= মহা+ঋষি।

মরূদ্যান= মরু+উদ্যান।

মশারি= মশা+আরি।

মহার্ঘ= মহা+অর্ঘ।

মন্বন্তর= মনু+অন্তর।

মাত্রাজ্ঞা= মাতৃ+আজ্ঞা।

মহাবর্ণ= মহা+অবর্ণ।

মতৈক্য= মত+ঐক্য।

মহেন্দ্র= মহা+ইন্দ্র।

মহোর্মি= মহা+ঊর্মি।

মস্যাধার= মসী+আধার।

যথেচ্ছা= যথা+ইচ্ছা।

যথার্থ= যথা+অর্থ।

যথোচিত= যথা+উচিত।

যথেষ্ট= যথা+ইষ্ট।

রমেন্দ্র= রমা+ইন্দ্র।

রত্বাকর= রত্ন+আকর।

রক্ষণাবেক্ষণ= রক্ষণ+আবেক্ষণ।

রাজর্ষি= রাজা+ঋষি।

রবীন্দ্র= রবি+ইন্দ্র।

রাধেন্দু= রাধা+ইন্দু।

লঘূর্মি= লঘু+ঊর্মি।

লবণ= লো+অন।

শয়ন= শে+অন।

শুভেচ্ছা= শুভ+ইচ্ছা।

শাবক= শো+অক।

শতেক= শত+এক।

শীতার্ত= শীত+ঋত।

শতাঙ্ক= শত+অঙ্ক।

শ্রবণ= শ্রু+অন।

শোকার্ত= শোক+ঋত।

ষষ্ঠাংশ= ষষ্ঠ+অংশ।

স্বাধিকার= স্ব+অধিকার।

সন্ধ্যাবধি= সন্ধ্য+অবধি।

সাধূক্তি= সাধু+উক্তি।

সানুনাসিক= স+অনুনাসিক।

সুক্ত= সু+উক্ত।

সিংহাসন= সিংহ+আসন।

স্বচ্ছ= সু+অচ্ছ।

স্বল্প= সু+অল্প।

স্বেচ্ছা= স্ব+ইচ্ছা।

সতীশ= সতী+ঈশ।

স্বাধীন= স্ব+অধীন।

সপ্তর্ষি= সপ্ত+ঋষি।

সতীন্দ্র= সতী+ইন্দ্র।

স্বাগত= সু+আগত।

হিমাঙ্গ= হিম+অঙ্গ।

হিমাঙ্ক= হিম+অঙ্ক।

হিতোপদেশ= হিত+উপদেশ।

হিতৈষী= হিত+ঐষী।

হিমাচল=হিম+অচল।

হিতাহিত= হিত+অহিত।

হস্তান্তর= হস্ত+অন্তর।

ক্ষণেক= ক্ষণ+এক।

ক্ষুধার্ত= ক্ষুধা+ঋত।

-: বিস্তারিত জানতে দেখুন :-

গুরুত্বপূর্ণ ব্যঞ্জনসন্ধি দেখতেঃ

*** এখানে ক্লিক করুন ***

গুরুত্বপূর্ণ বিসর্গসন্ধি দেখতেঃ

*** এখানে ক্লিক করুন ***

গুরুত্বপূর্ণ নিপাতনে সিদ্ধ সন্ধি দেখতেঃ

*** এখানে ক্লিক করুন ***

“ধন্যবাদ”

Be the first to comment

Leave a Reply